ভোট কারচুপি ও নানা অনিয়মের মধ্যেই শেষ হলো কমলনগরের ইউপি নির্বাচন

বার্তা কক্ষবার্তা কক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:১১ PM, ২১ জুন ২০২১

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ ১ম ধাপের ইউপি নির্বাচনে কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ, হাজিরহাট, চর ফলকন ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ ২১ শে জুন সোমবার।

সকাল থেকেই এই তিনটি ইউনিয়নে ব্যাপক অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগ করেছেন অধিকাংশ প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী। বিশেষ করে হাজিরহাট ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বিভিন্ন কেন্দ্রে রাতেই ভোট দিয়ে ভর্তি করে রাখা, ভোটারদের কেন্দ্রে ডুকতে না দেওয়া, এজেন্টদের কেন্দ্রে থেকে বের করে দেওয়াসহ নানা অভিযোগে সকাল ১০টার দিকে ভোট বর্জন করে অটোরিক্সা মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী জনাব খোরশেদ আলম।

এর কিছুক্ষণ পরই দুপুর ১২টার দিকে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মাওলানা রিয়াজ হোসাইন এর হাতপাখা প্রতীকের এজেন্টদের মারধর ও কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেন তিনি। কমলনগর উপজেলা শ্রমিকলীগ সভাপতি মোশারেফ হোসেন রাসেল কর্তৃক ৭নং ওয়ার্ডের এজেন্ট মাওলানা মামুনুর রশীদকে মারধর ও হামলার অভিযোগ করা হয়।

চর ফলকন ইউনিয়নেও তেমনিভাবে ভোট কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। হাতপাখা প্রতিকের প্রার্থী মাওলানা আব্দুর রহমান মাহমুদীর নির্বাচন কমিশন কর্তৃক অনুমোদিত মোটর সাইকেল কেড়ে নেওয়া, এজেন্টদের বের করে দেওয়াসহ নানা অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগ করেন তিনি। তেমনিভাবে ঘোড়া প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রাথী সাজ্জাদুর রহমানও ভোট কেন্দ্রে ডুকতে না দেওয়াসহ ভোট কারচুপির নানান অভিযোগ করেন।

অন্যদিকে সকাল থেকেই তোরাবগঞ্জে নৌকা মার্কা ও ঘোড়া মার্কার সমর্থকদের মাঝে দফায় দফা সংঘর্ষ ও দাওয়া-পাল্টা দাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এমনিকি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু’র গাড়িতেও হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। এতে আহত হয়েছে প্রায় ১৫জন।

সব মিলিয়ে নানা অনিয়ম ও ভোট কারচুপির অভিযোগ নিয়েই শেষ হলো ১ম ধাপের কমলনগর উপজেলার এই তিনটি ইউনিয়নের নির্বাচন।

আপনার মতামত লিখুন :