মহিপুরে অবৈধভাবে চলছে বিবাহ নিবন্ধন

বার্তাকক্ষবার্তাকক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:১৫ AM, ১০ নভেম্বর ২০২১

মহিপুর (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ বিবাহ বা বিয়ে হল একটি সামাজিক বন্ধন বা বৈধ চুক্তি। যার মাধ্যমে দু’জন মানুষের মধ্যে দাম্পত্য সম্পর্ক স্থাপিত হয়। বিভিন্ন দেশে সংস্কৃতিভেদে বিবাহের সংজ্ঞার তারতম্য থাকলেও সাধারণভাবে বিবাহ এমন একটি প্রতিষ্ঠান যার মাধ্যমে দু’জন মানুষের মধ্যে ঘনিষ্ঠ ও যৌন সম্পর্ক সামাজিক স্বীকৃতি লাভ করে।

পটুয়াখালীর মহিপুর সদর ইউনিয়নের নিয়োগপ্রাপ্ত কাজির উপস্থিতি ছাড়াই চলছে বিবাহ নিবন্ধন। বিবাহ নিন্ধনের কাগজ নিয়ে চলছে বিভিন্ন তালবাহানা। প্রতারনার স্বীকার হচ্ছেন অনেক নবদম্পতি। এমন একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে মহিপুর ইউনিয়নের নিয়োগপ্রাপ্ত কাজির সহযোগী পরিচয় দেওয়া মাওলানা মোঃ মাহতাব উদ্দিনের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্রে অনুসন্ধানে জানা যায়, মহিপুর ইউনিয়নের নিয়োগপ্রাপ্ত কাজি মাওলানা মোঃ আবুল কালমা দীর্ঘ ২ বছর যাবৎ শারীরিকভাবে অসুস্থ। তিনি অসুস্থ থাকার কারণে বর্তমানে তার সহকারী পরিচয়ে মাওলানা মোঃ মাহাতাব উদ্দিন এই দ্বায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। কিন্তু কোনো রকম বৈধতা ছাড়াই ২ বছর যাবৎ অবৈধভাবে করে যাচ্ছেন বিবাহ নিবন্ধন।

গত ২৬ শে অক্টোবর (মঙ্গলবার) পটুয়াখালী জেলা রেজিস্ট্রার মোঃ মহাসিন আলমের অনুসন্ধানে মহিপুর কাজি অফিসে নির্ধারিত বিবাহ নিবন্ধন বালামে স্বাক্ষর না করায় বিতর্ক সৃষ্টি হয়।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা রেজিস্ট্রার মোঃ মহাসিন আলম জানায়, দায়িত্বপ্রাপ্ত কাজি অসুস্থ থাকলে সেই স্থানে লাইসেন্সপ্রাপ্ত কাজি সহযোগিতায় উক্ত কার্য চালিয়ে নেয়ার নিয়ম আছে। বর্তমানে যে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি যেহেতু লাইসেন্সপ্রাপ্ত না সেহেতু সে সম্পূর্ণভাবে অবৈধ। তিনি জানান, এ বিষয়ে তদন্ত চলমান।

আপনার মতামত লিখুন :